চিংড়ি খাওয়া নিয়ে কুরআন কি বলে ? মিজানুর রহমানের ওয়াজ

চিংড়ি ওকাঁকড়া খাওয়া হারাম কি না সমুদ্রের শুধুমাত্র মাছ খাওয়া জায়েজ যদিও চিংড়ি কোন মাছ না, এটা একটা Arthropoda, কিন্তু যেহেতু মানুষ এটাকে খাদ্য হিসেবে খায় আর কুরআন ও হাদীসে কোথাও এটা খাওয়া যাবেনা - এই কথা বলা নাই চিংড়ি মাছ খাওয়া জায়েয। কারণ এটি মৎস প্রজাতির অন্তর্ভুক্ত।


আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ‘নদীর শিকার তোমাদের জন্য হালাল করা হয়েছে’ (মায়েদা ৯৬)। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, সমুদ্রের পানি পবিত্র এবং উহার মৃত হালাল (আবুদাউদ হা/৮৩; তিরমিযী হা/৬৯)। ‘দাঊদ (আঃ)-এর দেহে সৃষ্ট পোকাই চিংড়ি মাছ’ বলে সমাজে যে কথা প্রচলিত আছে তা ভিত্তিহীন। উক্ত মিথ্যা ঘটনা দাঊদ (আঃ)-এর ব্যাপারে নয় বরং আইয়ূব (আঃ) সম্পর্কে বর্ণনা করা হয়। উল্লেখ্য, তাকে কঠিন রোগে ফেলে দেহে পোকা ধরানো, দেহের সব মাংস খসে পড়া, পচে-গলে দুর্গন্ধময় হয়ে যাওয়ায় ঘর থেকে বের করে জঙ্গলে ফেলে আসা, ১৮ বা ৩০ বছর ধরে রোগ ভোগ করা, আত্মীয়-স্বজন সবাই তাকে ঘৃণাভরে ছেড়ে চলে যাওয়া ইত্যাদি সবই নবীবিদ্বেষী ও নবী হত্যাকারী ইহুদী গল্পকারদের বানোয়াট মিথ্যাচার ছাড়া কিছুই নয় (দ্রঃ নবীদের কাহিনী ১/২৫৫)। আল্লাহ তাঁকে ‘ধৈর্যশীল’ ও ‘সুন্দর বান্দা’ হিসাবে বর্ণনা করেছেন (ছোয়াদ ৩৮/৪৪)।